Ads by tnews247.com
বিশ্বকবি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের ১৫৩তম জন্মজয়ন্তী আজ

বিশ্বকবি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের ১৫৩তম জন্মজয়ন্তী আজ

Thu May 8, 2014     

আজ ২৫ বৈশাখ, বাংলা ১৪২১ বঙ্গাব্দ বিশ্বকবি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের ১৫৩তম জন্মবার্ষিকী। ১৮৬১ সালের ৭ মে (বাংলা ২৫ বৈশাখ, ১২৬৮) কলকাতার জোড়া সাঁকোর ঠাকুর পরিবারে জন্ম নেয়া রবীন্দ্রনাথ বাংলা সাহিত্যের সব শাখাতেই বিচরণ করেছেন। যুক্ত থেকেছেন বিভিন্ন সামাজিক-সাংস্কৃতিক আন্দোলনে। রবীন্দ্রনাথ ছিলেন স্বদেশী আন্দোলনের পুরোধা ব্যক্তিত্ব। ১৯১৩ সালে জয় করেছিলেন সাহিত্যে নোবেল পুরস্কার। ১৯১৫ সালে তিনি ব্রিটিশ সরকারের নাইট উপাধি লাভ করেন। ১৯১৯ সালের ১৩ এপ্রিল জালিয়ানওয়ালাবাগ হত্যাকাণ্ডের প্রতিবাদে ওই উপাধি ত্যাগ করেন।

 কলকাতায় জন্ম হলেও পৈতৃক জমিদারি দেখভালের জন্য তিনি তদানীন্তন পূর্ব বাংলার এসেছেন বহুবার। কুষ্টিয়ার শিলাইদহ, সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুর ও নওগাঁর পতিসরের জমিদার বাড়ি আজো তার স্মৃতিচিহ্ন বহন করছে। তার রচিত ছোটগল্পে আবহমান গ্রামবাংলা শৈল্পিক রূপ পেয়েছে।

 তিনি গৃহশিক্ষকের কাছে সংস্কৃত, ইংরেজি, পদার্থবিদ্যা, গণিত, ইতিহাস, ভূগোলসহ বিভিন্ন বিষয়ে জ্ঞান অর্জন করেন। পাশাপাশি ড্রয়িং, সঙ্গীত শিক্ষা ও জিমন্যাস্টিক শিক্ষাও।

১৮৭৪ সালে তার লেখা প্রথম প্রকাশিত হয়। ১৮৭৮ সালে রবীন্দ্রনাথ ইংল্যান্ড যান। উদ্দেশ্য ব্যারিস্টারি পড়া। তবে সেটি আর হয়ে উঠেনি। দেড় বছর সেখানে অবস্থান শেষে দেশে ফিরে রচনা করেন গীতিনাট্য ‘বাল্মীকি প্রতিভা’। ১৮৮২ সালে তিনি ‘সন্ধ্যাসঙ্গীত’ ও ১৮৮৩ সালে ‘প্রভাতসঙ্গীত’ রচনা করেন। ১৮৮৩ সালের ৯ ডিসেম্বর রবীন্দ্রনাথ বিয়ে করেন মৃণালিনী দেবী চৌধুরাণীকে। তার গ্রন্থের মধ্যে ‘শেষের কবিতা’ বাঙালির বহুল পঠিত উপন্যাস। বলাকা, সোনার তরী, মানসী, চিত্রা, চৈতালী, কল্পনা, ক্ষণিকা, চোখের বালি, নৌকাডুবি, গোরা, চিত্রাঙ্গদা, শ্যামা, নটরাজ, সভ্যতার সঙ্কট ইত্যাদি গ্রন্থ রচনা করেছেন তিনি। তার সাহিত্যকর্ম বিশ্বব্যাপী বিভিন্ন ভাষায় অনূদিত ও পঠিত হচ্ছে।

 রবীন্দ্র জন্মজয়ন্তী ঘিরে উৎসবমুখর বাংলাদেশ- ভারত। ঢাকা ও ঢাকার বাইরে কুষ্টিয়ার শিলাইদহ, নওগাঁর পতিসর, সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুর, খুলনার দক্ষিণ ডিহি ও চট্টগ্রামে সরকারি বেসরকারি নানা আয়োজনে পালিত হবে তার জন্মদিন। ঢাকায় ইতোমধ্যে শুরু হয়েছে বাংলাদেশ রবীন্দ্রসঙ্গীত শিল্পী সংস্থার রবীন্দ্রসঙ্গীত উৎসব। বাংলা একাডেমি, শিল্পকলা একাডেমি, ছায়ানট, বেসরকারি টিভি চ্যানেলসহ বিভিন্ন সাংস্কৃতিক-সামাজিক সংগঠন নানা কর্মসূচির মধ্য দিয়ে দিবসটি পালন করবে।

 বিশ্বকবি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে আজ কুষ্টিয়ার কুমারখালী উপজেলার শিলাইদহে কুঠিবাড়ি প্রাঙ্গণে তিন দিনব্যাপী অনুষ্ঠানের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করবেন তথ্যমন্ত্রী জাসদ সভাপতি হাসানুল হক ইনু। সকাল ১০টায় কুঠিবাড়ির মুক্ত মঞ্চে উদ্বোধন অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি প্রফেসর ড. আব্দুল হাকিম সরকার, কুষ্টিয়ার পৌরমেয়র আনোয়ার আলী, কুষ্টিয়া জেলা পরিষদের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা কে এম রাহাতুল ইসলাম, কুমারখালী পৌরমেয়র সামছুজ্জামান অরুন, জেলা জাসদের সভাপতি গোলাম মহসিন। স্মারক বক্তব্য রাখবেন বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ ও গবেষক ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের বাংলা বিভাগের শিক্ষক প্রফেসর ড. আবুল আহসান চৌধুরী।

 সংক্ষিপ্ত জীবনী:

রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর কলকাতার জোড়াসাঁকো ঠাকুরবাড়িতে জন্মগ্রহণ করেছিলেন। তাঁর পিতা ছিলেন ব্রাহ্ম ধর্মগুরু দেবেন্দ্রনাথ ঠাকুর (১৮১৭–১৯০৫) এবং মাতা ছিলেন সারদাসুন্দরী দেবী (১৮২৬–১৮৭৫)। রবীন্দ্রনাথ ছিলেন পিতামাতার চতুর্দশ সন্তান। জোড়াসাঁকোর ঠাকুর পরিবার ছিল ব্রাহ্ম আদিধর্ম মতবাদের প্রবক্তা। রবীন্দ্রনাথের পূর্ব পুরুষেরা খুলনা জেলার রূপসা উপজেলা পিঠাভোগে বাস করতেন। ১৮৭৫ সালে মাত্র চোদ্দ বছর বয়সে রবীন্দ্রনাথের মাতৃবিয়োগ ঘটে। পিতা দেবেন্দ্রনাথ দেশভ্রমণের নেশায় বছরের অধিকাংশ সময় কলকাতার বাইরে অতিবাহিত করতেন। তাই ধনাঢ্য পরিবারের সন্তান হয়েও রবীন্দ্রনাথের ছেলেবেলা কেটেছিল ভৃত্যদের অনুশাসনে। শৈশবে রবীন্দ্রনাথ কলকাতার ওরিয়েন্টাল সেমিনারি, নর্ম্যাল স্কুল, বেঙ্গল অ্যাকাডেমি এবং সেন্ট জেভিয়ার্স কলেজিয়েট স্কুলে কিছুদিন করে পড়াশোনা করেছিলেন। কিন্তু বিদ্যালয়-শিক্ষায় অনাগ্রহী হওয়ায় বাড়িতেই গৃহশিক্ষক রেখে তাঁর শিক্ষার ব্যবস্থা করা হয়েছিল। ছেলেবেলায় জোড়াসাঁকোর বাড়িতে অথবা বোলপুর ও পানিহাটির বাগানবাড়িতে প্রাকৃতিক পরিবেশের মধ্যে ঘুরে বেড়াতে বেশি স্বচ্ছন্দবোধ করতেন রবীন্দ্রনাথ।

 ১৮৭৩ সালে এগারো বছর বয়সে রবীন্দ্রনাথের উপনয়ন অনুষ্ঠিত হয়েছিল। এরপর তিনি কয়েক মাসের জন্য পিতার সঙ্গে দেশভ্রমণে বের হন। প্রথমে তাঁরা আসেন শান্তিনিকেতনে। এরপর পাঞ্জাবের অমৃতসরে কিছুকাল কাটিয়ে শিখদের উপাসনা পদ্ধতি পরিদর্শন করেন। শেষে পুত্রকে নিয়ে দেবেন্দ্রনাথ যান পাঞ্জাবেরই (অধুনা ভারতের হিমাচল প্রদেশ রাজ্যে অবস্থিত) ডালহৌসি শৈলশহরের নিকট বক্রোটায়। এখানকার বক্রোটা বাংলোয় বসে রবীন্দ্রনাথ পিতার কাছ থেকে সংস্কৃত ব্যাকরণ, ইংরেজি, জ্যোতির্বিজ্ঞান, সাধারণ বিজ্ঞান ও ইতিহাসের নিয়মিত পাঠ নিতে শুরু করেন। দেবেন্দ্রনাথ তাঁকে বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গের জীবনী, কালিদাস রচিত ধ্রুপদি সংস্কৃত কাব্য ও নাটক এবং উপনিষদ্‌ পাঠেও উৎসাহিত করতেন। ১৮৭৭ সালে ভারতী পত্রিকায় তরুণ রবীন্দ্রনাথের কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ রচনা প্রকাশিত হয়। এগুলি হল মাইকেল মধুসূদনের "মেঘনাদবধ কাব্যের সমালোচনা", ভানুসিংহ ঠাকুরের পদাবলী এবং "ভিখারিণী" ও "করুণা" নামে দুটি গল্প। এর মধ্যে ভানুসিংহ ঠাকুরের পদাবলী বিশেষভাবে উল্লেখযোগ্য। এই কবিতাগুলি রাধা-কৃষ্ণ বিষয়ক পদাবলির অনুকরণে "ভানুসিংহ" ভণিতায় রচিত। রবীন্দ্রনাথের "ভিখারিণী" গল্পটি (১৮৭৭) বাংলা সাহিত্যের প্রথম ছোটগল্প। ১৮৭৮ সালে প্রকাশিত হয় রবীন্দ্রনাথের প্রথম কাব্যগ্রন্থ তথা প্রথম মুদ্রিত গ্রন্থ কবিকাহিনী। এছাড়া এই পর্বে তিনি রচনা করেছিলেন সন্ধ্যাসংগীত (১৮৮২) কাব্যগ্রন্থটি। রবীন্দ্রনাথের বিখ্যাত কবিতা "নির্ঝরের স্বপ্নভঙ্গ" এই কাব্যগ্রন্থের অন্তর্গত।

 ১৮৭৮ সালে ব্যারিস্টারি পড়ার উদ্দেশ্যে ইংল্যান্ডে যান রবীন্দ্রনাথ। প্রথমে তিনি ব্রাইটনের একটি পাবলিক স্কুলে ভর্তি হয়েছিলেন। ১৮৭৯ সালে ইউনিভার্সিটি কলেজ লন্ডনে আইনবিদ্যা নিয়ে পড়াশোনা শুরু করেন। কিন্তু সাহিত্যচর্চার আকর্ষণে সেই পড়াশোনা তিনি সমাপ্ত করতে পারেননি। ইংল্যান্ডে থাকাকালীন শেকসপিয়র ও অন্যান্য ইংরেজ সাহিত্যিকদের রচনার সঙ্গে রবীন্দ্রনাথের পরিচয় ঘটে। এই সময় তিনি বিশেষ মনোযোগ সহকারে পাঠ করেন রিলিজিও মেদিচি, কোরিওলেনাস এবং অ্যান্টনি অ্যান্ড ক্লিওপেট্রা। এই সময় তাঁর ইংল্যান্ডবাসের অভিজ্ঞতার কথা ভারতী পত্রিকায় পত্রাকারে পাঠাতেন রবীন্দ্রনাথ। উক্ত পত্রিকায় এই লেখাগুলি জ্যেষ্ঠভ্রাতা দ্বিজেন্দ্রনাথ ঠাকুরের সমালোচনাসহ প্রকাশিত হত য়ুরোপযাত্রী কোনো বঙ্গীয় যুবকের পত্রধারা নামে। ১৮৮১ সালে সেই পত্রাবলি য়ুরোপ-প্রবাসীর পত্র নামে গ্রন্থাকারে ছাপা হয়। এটিই ছিল রবীন্দ্রনাথের প্রথম গদ্যগ্রন্থ তথা প্রথম চলিত ভাষায় লেখা গ্রন্থ। অবশেষে ১৮৮০ সালে প্রায় দেড় বছর ইংল্যান্ডে কাটিয়ে কোনো ডিগ্রি না নিয়ে এবং ব্যারিস্টারি পড়া শুরু না করেই তিনি দেশে ফিরে আসেন।

 ১৮৯১ সাল থেকে পিতার আদেশে নদিয়া (নদিয়ার উক্ত অংশটি অধুনা বাংলাদেশের কুষ্টিয়া জেলা), পাবনা ও রাজশাহী জেলা এবং উড়িষ্যার জমিদারিগুলির তদারকি শুরু করেন রবীন্দ্রনাথ। কুষ্টিয়ার শিলাইদহের কুঠিবাড়িতে রবীন্দ্রনাথ দীর্ঘ সময় অতিবাহিত করেছিলেন। জমিদার রবীন্দ্রনাথ শিলাইদহে "পদ্মা" নামে একটি বিলাসবহুল পারিবারিক বজরায় চড়ে প্রজাবর্গের কাছে খাজনা আদায় ও আশীর্বাদ প্রার্থনা করতে যেতেন। গ্রামবাসীরাও তাঁর সম্মানে ভোজসভার আয়োজন করত।

 জীবনের শেষ দশকে (১৯৩২-১৯৪১) রবীন্দ্রনাথের মোট পঞ্চাশটি গ্রন্থ প্রকাশিত হয়। তাঁর এই সময়কার কাব্যগ্রন্থগুলির মধ্যে বিশেষভাবে উল্লেখযোগ্য পুনশ্চ (১৯৩২), শেষ সপ্তক (১৯৩৫), শ্যামলী ও পত্রপুট (১৯৩৬) – এই গদ্যকবিতা সংকলন তিনটি। জীবনের এই পর্বে সাহিত্যের নানা শাখায় পরীক্ষা-নিরীক্ষা চালিয়েছিলেন রবীন্দ্রনাথ। তাঁর এই পরীক্ষা-নিরীক্ষার ফসল হলো তাঁর একাধিক গদ্যগীতিকা ও নৃত্যনাট্য চিত্রাঙ্গদা (১৯৩৬; চিত্রাঙ্গদা (১৮৯২) কাব্যনাট্যের নৃত্যাভিনয়-উপযোগী রূপ), শ্যামা (১৯৩৯) ও চণ্ডালিকা (১৯৩৯) নৃত্যনাট্যত্রয়ী। এছাড়া রবীন্দ্রনাথ তাঁর শেষ তিনটি উপন্যাসও (দুই বোন (১৯৩৩), মালঞ্চ (১৯৩৪) ও চার অধ্যায় (১৯৩৪)) এই পর্বে রচনা করেছিলেন। তাঁর অধিকাংশ ছবি জীবনের এই পর্বেই আঁকা। এর সঙ্গে সঙ্গে জীবনের শেষ বছরগুলিতে বিজ্ঞান বিষয়ে আগ্রহী হয়ে উঠেছিলেন রবীন্দ্রনাথ। ১৯৩৭ সালে প্রকাশিত হয় তাঁর বিজ্ঞান-বিষয়ক প্রবন্ধ সংকলন বিশ্বপরিচয়। এই গ্রন্থে তিনি জ্যোতির্বিজ্ঞানের আধুনিকতম সিদ্ধান্তগুলি সরল বাংলা গদ্যে লিপিবদ্ধ করেছিলেন। পদার্থবিদ্যা ও জ্যোতির্বিজ্ঞান সম্পর্কে তাঁর অর্জিত জ্ঞানের প্রভাব পরিলক্ষিত হয় তাঁর কাব্যেও। সে (১৯৩৭), তিন সঙ্গী (১৯৪০) ও গল্পসল্প (১৯৪১) গল্পসংকলন তিনটিতে তাঁর বিজ্ঞানী চরিত্র-কেন্দ্রিক একাধিক গল্প সংকলিত হয়েছে।

 জীবনের শেষ চার বছর ছিল তাঁর ধারাবাহিক শারীরিক অসুস্থতার সময়। এই সময়ের মধ্যে দুইবার অত্যন্ত অসুস্থ অবস্থায় শয্যাশায়ী থাকতে হয়েছিল তাঁকে। ১৯৩৭ সালে একবার অচৈতন্য হয়ে গিয়ে আশঙ্কাজনক অবস্থা হয়েছিল কবির। সেবার সেরে উঠলেও ১৯৪০ সালে অসুস্থ হওয়ার পর আর তিনি সেরে উঠতে পারেননি।এই সময়পর্বে রচিত রবীন্দ্রনাথের কবিতাগুলি ছিল মৃত্যুচেতনাকে কেন্দ্র করে সৃজিত কিছু অবিস্মরণীয় পংক্তিমালা। মৃত্যুর সাত দিন আগে পর্যন্ত রবীন্দ্রনাথ সৃষ্টিশীল ছিলেন। দীর্ঘ রোগভোগের পর ১৯৪১ সালে জোড়াসাঁকোর বাসভবনেই শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর।







Facebook এ আমরা

আরও খবর


বৈষম্যের কারণে পূর্ব পাকিস্তান বাংলাদেশ হতে পারলে সচিবালয়ের ন্যায় উচ্চমান সহকারীও প্রশাসনিক কর্মকর্তা হতে পারবে রবিবার বাংলাদেশ প্রশাসনিক কর্মকর্তা বাস্তবায়ন ঐক্য পরিষদ শিক্ষা ভবন ঢাকায় সংগঠনের আওতাধীন সরকারী বিভিন্ন দপ্তর অধিদপ্তরে কর্মরত প্রধান সহকারী/উচ্চমান সহকারী/সহকারীসহ সমপদ ও উক্ত পদের ফিডার পদধারীদে

 

দুই ছাত্রীকে ধর্ষণের মামলার অভিযোগপত্র গ্রহণ করেছে আদালত রাজধানীর বনানীতে বিশ্ববিদ্যালয়ের দুই ছাত্রীকে ধর্ষণের মামলার অভিযোগপত্র গ্রহণ করেছে আদালত। আগামী ৯ জুলাই চার্জ গঠনের শুনানির দিন ধার্য করা হয়েছে।

 

‘অনুপ্রবেশকারী মিয়ানমার নাগরিক দ্বারা দেশ ক্ষতিগ্রস্ত’ ‘অনুপ্রবেশকারী মিয়ানমার নাগরিকদের দ্বারা নানাভাবে ক্ষতির সম্মুখীন হচ্ছে বাংলাদেশ।’ বৃহস্পতিবার জাতীয় সংসদে সরকারি দলের সংসদ সদস্য ইসরাফিল আলমের প্রশ্নের জবাবে এ কথা বলেন পররাষ্ট্রমন্ত্র

 

দেশে ২৫ লাখ ৮৭ হাজার বেকার ত্রৈমাসিক শ্রমশক্তি জরিপ প্রতিবেদন অনুযায়ী বাংলাদেশে মোট বেকারের সংখ্যা ২৫ লাখ ৮৭ হাজার জন। বৃহস্পতিবার জাতীয় সংসদে সংরক্ষিত নারী সংসদ সদস্য জাহান আরা বেগম সুরমার এক লিখিত প্রশ্নের জবাবে এসব তথ্য জ

 

সিলেট ও চট্টগ্রামে ভারী বর্ষণের সম্ভাবনা লঘুচাপের বর্ধিতাংশ পশ্চিমঙ্গ ও তৎসংলগ্ন এলাকায় অবস্থান করছে, যা উত্তর বঙ্গোপসাগর পর্যন্ত বিস্তৃত। মৌসুমি বায়ু বাংলাদেশের ওপর মোটামুটি সক্রিয় এবং উত্তর বঙ্গোপসাগরে মাঝারি অবস্থায় বিরাজ করছে।

 

সংসদে গম ও ভুট্টা গবেষণা ইনস্টিটিউটের বিল উত্থাপন বাংলাদেশ গম ও ভুট্টা গবেষণা ইনস্টিটিউট বিল-২০১৭ জাতীয় সংসদে উত্থাপন করা হয়েছে। গম গবেষণা কেন্দ্রকে বাংলাদেশ গম ও ভুট্টা গবেষণা ইনস্টিটিউটে রূপান্তর করার প্রয়োজনীয় বিধানের প্রস্তাব করে কৃষিমন্ত্রী ব

 

অন্যান্য

বৈষম্যের কারণে পূর্ব পাকিস্তান বাংলাদেশ হতে পারলে সচিবালয়ের ন্যায় উচ্চমান সহকারীও প্রশাসনিক কর্মকর্তা হতে পারবে

দুই ছাত্রীকে ধর্ষণের মামলার অভিযোগপত্র গ্রহণ করেছে আদালত

‘অনুপ্রবেশকারী মিয়ানমার নাগরিক দ্বারা দেশ ক্ষতিগ্রস্ত’

দেশে ২৫ লাখ ৮৭ হাজার বেকার

সিলেট ও চট্টগ্রামে ভারী বর্ষণের সম্ভাবনা

সংসদে গম ও ভুট্টা গবেষণা ইনস্টিটিউটের বিল উত্থাপন

পুলিশে ৭৫ হাজার ৩০৬টি নতুন পদ সৃষ্টি

আজ রাত থেকে ১৮ ঘণ্টা সিম বিক্রি বন্ধ

‘ফিটনেসবিহীন নৌযান চলবে না’

বিক্রির আগেই টিকিট শেষ লঞ্চের

সুইডেন পৌঁছেছেন প্রধানমন্ত্রী

এসি টিকিট যেন সোনার হরিণ

দেশের ভাবমূর্তিবিরোধী কিছু করবেন না : প্রধানমন্ত্রী

ঈদে নির্বিঘ্ন যাতায়াত নিশ্চিতে আট সুপারিশ

ঈদের আগে-পরে পাঁচ দিন বাল্কহেড কার্গো চলাচল বন্ধ

পাহাড় ধসে প্রাণহানিতে যুক্তরাষ্ট্র দূতাবাসের শোক

সাত দিনের মধ্যে ভোগান্তি নিরসনের নির্দেশ ভূমিমন্ত্রীর

বিআইডব্লিউটিসির অগ্রিম টিকিট ২২ জুন থেকে

জবাবদিহির জন্যই কর্মসম্পাদন চুক্তি: পাটমন্ত্রী

ফের ভারি বর্ষণ ও ভূমিধসের শঙ্কা

সম্পাদক: মেহারাব খান মুন
৩৮ গরিব এ-নেওয়াজ এভিনিউ, উত্তরা, ঢাকা ১২৩০. ইমেইল: info@tnews247.com
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত tnews247.com ২০১৪
Hosted & Developed by N. I. Biz Soft