Ads by tnews247.com
ডিজিটাল যুগে বর্তমান শিক্ষা ব্যবস্থার মান

ডিজিটাল যুগে বর্তমান শিক্ষা ব্যবস্থার মান

Tue March 18, 2014     

বাংলাদেশের প্রাথমিক শিক্ষা ব্যবস্থা পুরো বিশ্বের মধ্যে অন্যতম সর্ববৃহৎ শিক্ষা ব্যবস্থা। আমাদের দেশে আনুমানিক প্রায় ৬-৮ বছর বয়সী শিশুদের জন্য ১৬.৪ লক্ষ্য প্রাথমিক শিক্ষালয় আছে। সেখানে ৩৬৫, ৯২৫ জন শিক্ষকশিক্ষিকা রয়েছেন। যাদের মধ্যে ৫৩% মহিলা শিক্ষিকা এবং ২৩% প্রধান শিক্ষিকা। ১৯৯০ সালে  আমাদের দেশের প্রাথমিক শিক্ষাকে বাধ্যতামূলক করা হয়েছে। এ নিয়ম অনুযায়ী ৫ম শ্রেণী পর্যন্ত শিশুরা বিনামূল্যে শিক্ষা অর্জন করার সুবিধা পাবে। বাংলাদেশ সরকার শিক্ষার মান বৃদ্ধিকে, দারিদ্রতা ও শিশুদের জীবনযাত্রার মান বৃদ্ধির অন্যতম দিক হিসেবে বিবেচনা করছে। 

শিশুদের অধিকার নিশ্চিত করতে, অনেক আগে থেকেই বিভিন্ন ব্যবস্থা গ্রহন করা হচ্ছে। কিন্তু তারপরও শিশুদের কিছু প্রধান চাহিদা আছে, যা থেকে অনেক শিশু এখনও বঞ্ছিত। সেসকল চাহিদার মধ্যে রয়েছে, শিশুদের প্রাথমিক শিক্ষার মান উন্নয়ন করা, শিক্ষার মাঝপথে স্কুল ছেড়ে দেয়া, প্রতিবন্ধি শিশুদের শিক্ষাব্যবস্থা করা। পরিসংখ্যায় দেখা গেছে, এখনও প্রায় ৩৩ লক্ষ শিশু শিক্ষার আলো থেকে দূরে আছে। এছাড়াও শ্রমিক শিশুদের জন্য, প্রতিবন্ধি শিশুদের জন্য, ও অনুন্নত এলাকার শিশুদের জন্য শিক্ষা ব্যবস্থার মান এখনও খারাপ। বাংলাদেশ ব্যুরো সেন্সাসের পরিসংখান থেকে জানা গেছে, ৩-১০ বছর বয়সী প্রায় ১০% শিশু প্রতিবন্ধি হয়ে থাকে। প্রতিবন্ধি শিশুদের মাঝে মেয়েদের থেকে ছেলেদের পরিমাণ বেশি পাওয়া যায়। 

২০০৪ সাল থেকে বাংলাদেশ সরকার UNICEF-এর সাথে যুক্ত হয়ে, প্রাথমিক শিক্ষার মান উন্নয়নের চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। তাদের এই উদ্যোগে, প্রায় ৬৪ টি জেলায় ২০১১ সালের মধ্যে ৬১, ০৭২ টি বিদ্যালয় স্থাপন করা হয়েছে। এখানে একটি শক্তিশালী তত্ত্বাবধানের মাধ্যমে প্রাথমিক শিক্ষাকে উন্নত করে কিভাবে শিশুদের চাহিদা পূরণ করা সম্ভব সে আলোচনা করা হয়। UNICEF-এর সাথে, বাংলাদেশ সরকারের এই উদ্যোগের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ দিক ছিল, শিক্ষক, অভিভাবক ও বিদ্যালয় তত্ত্বাবধানের কাজে থাকা ব্যাক্তিদের একত্রিত বৈঠক। যেখানে বাংলাদেশের প্রাথমিক শিক্ষা ব্যবস্থাকে উন্নত করার বিষয়ে আলোচনা করা হয়। এই আলোচনার ফলে ২০০৯ সালের জুন মাসের মধ্যে ৪ লক্ষ শিশু বিদ্যালয়ে অংশগ্রহন করে। এছাড়াও শিক্ষক, শিক্ষাবিদ, সকল পেশার মানুষ, ব্যবসায়ী, বিনিয়োগকারী, আলেম-ওলামা, সকল রাজনৈতিক দল ও সমাজের সকল অংশের মানুষের মতামত গ্রহণ করে একটি যুগোপযোগী শিক্ষানীতির উদ্যোগ গ্রহন করা হয়েছে।

উদ্যোগটি বাস্তবায়ন করতে ২০১০ সালের জানুয়ারির ১ তারিখ থেকেই প্রথম শ্রেণী থেকে ১০ম শ্রেণী পর্যন্ত বিনামূল্যে পাঠ্যপুস্তক বিতরণ করা হচ্ছে। সেই সাথে ৪০% গরীব ও মেধাবী শিক্ষার্থীকে উপবৃত্তি প্রদানের পাশাপাশি পঞ্চম  ও অষ্টম শ্রেণীতে জাতীয়ভাবে পরীক্ষা গ্রহণের পদক্ষেপটি শিক্ষার্থী ঝরে পড়ার হার হ্রাস করেছে। এসএসসি ও এইচএসসি পরীক্ষার ফলাফল পরীক্ষা শেষ হবার ৬০ দিনের মধ্যে পরীক্ষার ফলাফল প্রকাশ করার উদ্যোগও গ্রহন করা হয়েছে। ডিজিটাল যুগের সাথে তাল মিলিয়ে ফলাফল ওয়েব সাইটে ও ই-মেইলে দেয়া হচ্ছে। ফলে শিক্ষার্থীরা ঘরে বসে মোবাইলফোনে এসএমএস করে কয়েক সেকেন্ডের মধ্যে ফলাফল জানতে পারছে। যার মাধ্যমে আধুনিক প্রযুক্তির ব্যবহার করে বাংলাদেশের শিক্ষাক্ষেত্রকে প্রসারিত করা সম্ভব হচ্ছে। শিক্ষার গুণগত মানবৃদ্ধির জন্য সবচেয়ে নিয়ামক শক্তি হল শিক্ষক। শিক্ষকদের দক্ষ ও যোগ্য করে গড়ে তোলার লক্ষ্যে শিক্ষকদের যথাযথ প্রশিক্ষণ দেয়া হচ্ছে। শিক্ষার্থীদের মধ্যে সৃজনশীলতা সৃষ্টির লক্ষ্যে সৃজনশীল প্রশ্নপদ্ধতি চালু করা হয়েছে। শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোতে পাঠাগার গড়ে তোলা হচ্ছে। শিক্ষাক্ষেত্রে ডিজিটাল প্রযুক্তির সম্প্রসারণ করতে রাজধানি ঢাকা ছাড়াও বিভিন্ন উপজেলার ৫টি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে কম্পিউটার ল্যাব তৈরী করা হয়েছে।  শিক্ষকদের ডিজিটাল প্রযুক্তির ব্যবহারে দক্ষ করে গড়ে তোলার জন্য প্রতিটি প্রতিষ্ঠানে ৪ জন করে শিক্ষকের আইসিটি প্রশিক্ষণ দেয়া হয়েছে। তাছাড়া ২০১৩ সালে মোট ১২৭ জন হত দরিদ্র ও দরিদ্র পরিবারের ছাত্র-ছাত্রীদের শিক্ষা সহায়তা সর্বমোট ১,৮৫,১১১ টাকার চেক বিতরণ করা হয়। এরফলে শুধুমাত্র তাদের ভবিষ্যৎ পড়াশুনাই না, পড়াশুনার প্রতি তাদের ও তাদের অভিভাবকদের উৎসাহ জোগান দেয়া হয়েছে। এমনিভাবে জাতীয় পর্যায়ে শিক্ষা ব্যবস্থাপনার সাথে তাল মিলিয়ে এগিয়ে চলেছে আমাদের বাংলাদেশের শিক্ষা ব্যবস্থাপনা। 







Facebook এ আমরা

আরও খবর


বৈষম্যের কারণে পূর্ব পাকিস্তান বাংলাদেশ হতে পারলে সচিবালয়ের ন্যায় উচ্চমান সহকারীও প্রশাসনিক কর্মকর্তা হতে পারবে রবিবার বাংলাদেশ প্রশাসনিক কর্মকর্তা বাস্তবায়ন ঐক্য পরিষদ শিক্ষা ভবন ঢাকায় সংগঠনের আওতাধীন সরকারী বিভিন্ন দপ্তর অধিদপ্তরে কর্মরত প্রধান সহকারী/উচ্চমান সহকারী/সহকারীসহ সমপদ ও উক্ত পদের ফিডার পদধারীদে

 

দুই ছাত্রীকে ধর্ষণের মামলার অভিযোগপত্র গ্রহণ করেছে আদালত রাজধানীর বনানীতে বিশ্ববিদ্যালয়ের দুই ছাত্রীকে ধর্ষণের মামলার অভিযোগপত্র গ্রহণ করেছে আদালত। আগামী ৯ জুলাই চার্জ গঠনের শুনানির দিন ধার্য করা হয়েছে।

 

‘অনুপ্রবেশকারী মিয়ানমার নাগরিক দ্বারা দেশ ক্ষতিগ্রস্ত’ ‘অনুপ্রবেশকারী মিয়ানমার নাগরিকদের দ্বারা নানাভাবে ক্ষতির সম্মুখীন হচ্ছে বাংলাদেশ।’ বৃহস্পতিবার জাতীয় সংসদে সরকারি দলের সংসদ সদস্য ইসরাফিল আলমের প্রশ্নের জবাবে এ কথা বলেন পররাষ্ট্রমন্ত্র

 

দেশে ২৫ লাখ ৮৭ হাজার বেকার ত্রৈমাসিক শ্রমশক্তি জরিপ প্রতিবেদন অনুযায়ী বাংলাদেশে মোট বেকারের সংখ্যা ২৫ লাখ ৮৭ হাজার জন। বৃহস্পতিবার জাতীয় সংসদে সংরক্ষিত নারী সংসদ সদস্য জাহান আরা বেগম সুরমার এক লিখিত প্রশ্নের জবাবে এসব তথ্য জ

 

সিলেট ও চট্টগ্রামে ভারী বর্ষণের সম্ভাবনা লঘুচাপের বর্ধিতাংশ পশ্চিমঙ্গ ও তৎসংলগ্ন এলাকায় অবস্থান করছে, যা উত্তর বঙ্গোপসাগর পর্যন্ত বিস্তৃত। মৌসুমি বায়ু বাংলাদেশের ওপর মোটামুটি সক্রিয় এবং উত্তর বঙ্গোপসাগরে মাঝারি অবস্থায় বিরাজ করছে।

 

সংসদে গম ও ভুট্টা গবেষণা ইনস্টিটিউটের বিল উত্থাপন বাংলাদেশ গম ও ভুট্টা গবেষণা ইনস্টিটিউট বিল-২০১৭ জাতীয় সংসদে উত্থাপন করা হয়েছে। গম গবেষণা কেন্দ্রকে বাংলাদেশ গম ও ভুট্টা গবেষণা ইনস্টিটিউটে রূপান্তর করার প্রয়োজনীয় বিধানের প্রস্তাব করে কৃষিমন্ত্রী ব

 

অন্যান্য

বৈষম্যের কারণে পূর্ব পাকিস্তান বাংলাদেশ হতে পারলে সচিবালয়ের ন্যায় উচ্চমান সহকারীও প্রশাসনিক কর্মকর্তা হতে পারবে

দুই ছাত্রীকে ধর্ষণের মামলার অভিযোগপত্র গ্রহণ করেছে আদালত

‘অনুপ্রবেশকারী মিয়ানমার নাগরিক দ্বারা দেশ ক্ষতিগ্রস্ত’

দেশে ২৫ লাখ ৮৭ হাজার বেকার

সিলেট ও চট্টগ্রামে ভারী বর্ষণের সম্ভাবনা

সংসদে গম ও ভুট্টা গবেষণা ইনস্টিটিউটের বিল উত্থাপন

পুলিশে ৭৫ হাজার ৩০৬টি নতুন পদ সৃষ্টি

আজ রাত থেকে ১৮ ঘণ্টা সিম বিক্রি বন্ধ

‘ফিটনেসবিহীন নৌযান চলবে না’

বিক্রির আগেই টিকিট শেষ লঞ্চের

সুইডেন পৌঁছেছেন প্রধানমন্ত্রী

এসি টিকিট যেন সোনার হরিণ

দেশের ভাবমূর্তিবিরোধী কিছু করবেন না : প্রধানমন্ত্রী

ঈদে নির্বিঘ্ন যাতায়াত নিশ্চিতে আট সুপারিশ

ঈদের আগে-পরে পাঁচ দিন বাল্কহেড কার্গো চলাচল বন্ধ

পাহাড় ধসে প্রাণহানিতে যুক্তরাষ্ট্র দূতাবাসের শোক

সাত দিনের মধ্যে ভোগান্তি নিরসনের নির্দেশ ভূমিমন্ত্রীর

বিআইডব্লিউটিসির অগ্রিম টিকিট ২২ জুন থেকে

জবাবদিহির জন্যই কর্মসম্পাদন চুক্তি: পাটমন্ত্রী

ফের ভারি বর্ষণ ও ভূমিধসের শঙ্কা

সম্পাদক: মেহারাব খান মুন
৩৮ গরিব এ-নেওয়াজ এভিনিউ, উত্তরা, ঢাকা ১২৩০. ইমেইল: info@tnews247.com
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত tnews247.com ২০১৪
Hosted & Developed by N. I. Biz Soft